1. info@www.dainikdeshbarta.com : bissho sangbad Online : bissho sangbad Online
  2. info@www.dainikdeshbarta.com : Dainik Desh Barta :
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১২:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাংলাদেশ শেফ ফেডারেশনের সাথে মতবিনিময় বাংলাদেশের শেফগণ দেশে-বিদেশে সুনামের সাথে অবদান রাখছেঃ রাষ্ট্রপতি নবাগত ইউএনওর সাথে বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের সৌজন্য সাক্ষাৎ টেকনাফের কলেজছাত্র মুরাদ হত্যা মামলার আসামি রহিম কারাগারে কক্সবাজার সমুদ্রে গোসল করতে নেমে ডুবে গেলেন ৪ পর্যটক, নিখোঁজ ১  পটিয়া পৌরসভা সড়কের নবনির্মিত ডিভাইডারে বৃক্ষ রোপন উদ্ভোধন করলেন মেয়র আইয়ুব বাবুল। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সম্মেলন প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত পলাশবাড়ীতে অটো গ্যারেজের নৈশ প্রহরীকে হত্যা করে ৫টি আটো চুরি বোয়ালখালীতে নবনিযুক্ত স্বাস্থ্য সহকারীদের বরণ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চন্দনাইশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল বালক (অনূর্ধ্ব১৭) টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগের মা সম্মেলনে বক্তারা : শিশুদের স্মার্ট ফোন ব্যবহার আমাদেরকে মেধা শূন্য জাতিতে পরিণত করবে

সোনাইমুড়ীতে দুর্গন্ধের সূত্রে মিল্ল মান্নানের লাশ।

  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪
  • ৫৪ বার পড়া হয়েছে

রবিউল হাসান, সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলার নাটেশ্বর ইউনিয়নের দারুল আরকাম ইসলামিয়া মাদরাসার পুকুরের ঘটনাটি ঘটে।

বুধবার (১২ জুন) রাত সোয়া ৯টার দিকে পুলিশ এই লাশ উদ্ধার করে।

নিহত মান্নান উপজেলার নাটেশ্বর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর মির্জানগর গ্রামের কামাল হোসেনের ছেলে। সে পূর্ব নাটেশ্বর গ্রামের দারুল আরকাম ইসলামিয়া মাদরাসার নাজেরা বিভাগের ছাত্র ছিল।

পুলিশও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত দুই দিন আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মাদরাসার পুুকুরে গোসল করতে যায় মান্নান। এরপর থেকে সে গত দুদিন নিখোঁজ ছিল।

বুধবার বিকেল ৫ টার দিকে মাদরাসার ছাত্ররা অজু করতে গেলে পুকুর থেকে দুর্গন্ধ পায়। এই দুর্গন্ধের উৎস খুঁজতে গিয়ে মান্নানের মরদেহ পুকুর ঘাটের নিচে দেখতে পায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

ওসি বখতিয়ার উদ্দিন বলেন, লাশ ময়না তদন্তের জন্য ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এটি হত্যা না আত্মহত্যা ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে। তবে নিহতের পরিবার একটি অভিযোগ করেছে। ওই ছাত্র মাঝে মাঝে মাদরাসা থেকে পালিয়ে গেলে এক শিক্ষক তাকে দুটি থাপ্পড় দেয়। নিহতের পরিবার হুজুরকে সন্দেহ করছে।

মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মহিউদ্দিন জানান, দু’দিন ধরে ছাত্রটি নিখোঁজ ছিল। এই ছেলেটি প্রায় সময় কাউকে না বলে মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে যায়। অসংখ্যবার এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

নিহতের সহোদর অভিযোগ করে জানান, পড়ালেখা না পারার অজুহাতে ওই মাদ্রাসার হুজুরা প্রায় সময় তার উপর শারীরিক নির্যাতন চালাত। পূর্বে তাকে গলা টিপে ধরে। মাটিতে ফেলে দেয়ার ঘটনাও ঘটেছে। শারীরিক নির্যাতনের বিষয়ে প্রিন্সিপাল এর কাছে বিচার চাইলে কিছুদিন পূর্বে এক হুজুর তাকে মেরে ফেলার হুমকিও দিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট