1. info@www.dainikdeshbarta.com : bissho sangbad Online : bissho sangbad Online
  2. info@www.dainikdeshbarta.com : Dainik Desh Barta :
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ১১:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাংলাদেশ শেফ ফেডারেশনের সাথে মতবিনিময় বাংলাদেশের শেফগণ দেশে-বিদেশে সুনামের সাথে অবদান রাখছেঃ রাষ্ট্রপতি নবাগত ইউএনওর সাথে বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের সৌজন্য সাক্ষাৎ টেকনাফের কলেজছাত্র মুরাদ হত্যা মামলার আসামি রহিম কারাগারে কক্সবাজার সমুদ্রে গোসল করতে নেমে ডুবে গেলেন ৪ পর্যটক, নিখোঁজ ১  পটিয়া পৌরসভা সড়কের নবনির্মিত ডিভাইডারে বৃক্ষ রোপন উদ্ভোধন করলেন মেয়র আইয়ুব বাবুল। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার কমিশন চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সম্মেলন প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত পলাশবাড়ীতে অটো গ্যারেজের নৈশ প্রহরীকে হত্যা করে ৫টি আটো চুরি বোয়ালখালীতে নবনিযুক্ত স্বাস্থ্য সহকারীদের বরণ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত চন্দনাইশে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গোল্ডকাপ ফুটবল বালক (অনূর্ধ্ব১৭) টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সার্ক মানবাধিকার ফাউন্ডেশন চট্টগ্রাম বিভাগের মা সম্মেলনে বক্তারা : শিশুদের স্মার্ট ফোন ব্যবহার আমাদেরকে মেধা শূন্য জাতিতে পরিণত করবে

সুফি স্পিরিচুয়াল ফাউন্ডেশনের পথচলার এক দশক -নেছার আহমেদ খান

  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২৩
  • ২৮৯ বার পড়া হয়েছে

সুফি ভাবধারায় পরিচালিত একটি বহুমুখী সেবা প্রতিষ্ঠান সুফি স্পিরিচুয়াল ফাউন্ডেশন। আত্মার জমিনে হোক প্রেমের চাষাবাদ এই স্লোগানকে সামনে রেখে দেশের ৫টি বিভাগের ১৫টি জেলায়, ৫টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, ২টি মেডিকেল কলেজ এবং ৪টি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

যেকোন তত্ত্বেরই একটি নির্ভরযোগ্য পাঠ থাকা প্রয়োজন। তত্ত্ব নানা কারণে বিকৃত হয়। ধর্মের তত্ত্ব বিকৃত হয় আরো বেশি। কারণ এর সংশ্লিষ্টতা মানুষের আবেগ ও বিশ্বাসের সঙ্গে জড়িত। সুফিসাধনা ইসলামের মৌলসত্তা ও অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্যের ধারক ও বাহক। কিন্তু এই ধারাটিও বিভিন্ন কারণে বিকৃত ইসলামের মূল কাঠামো থেকে দূরে চলে যাচ্ছে যা কোনমতেই কাম্য নয়।
সত্য নতুন-পুরাতন হয় না। কিন্তু সত্যকে যে ধারণ করে সে নতুন-পুরাতন হয়। কালের আবর্তনে মানুষ সত্য ছেড়ে আঁকড়ে ধরে প্রথা ও রীতি-নীতি। ফলে সত্যের পথ গতিদীর্ণ হয়। তাই কালে কালে নিতে হয় কালের সিদ্ধান্ত। নতুন করে বলতে হয় পুরাতন কথা ।

প্রকৃত সত্যকে ধারণ না করার কারণেই মুসলমানেরা জ্ঞানহীন আর এই জ্ঞানহীনতার অনিবার্য পরিণতি হচ্ছে দীনতা, বিচ্ছিন্নতা, নৈরাজ্য, বিভ্রান্তি আর শেষে অবহেলার স্বীকার। গত একশত-দেড়শো বছরে হাতে গোনা কয়েকজন ছাড়া গোটা মুসলিম বিশ্বে মুসলমান বিজ্ঞানী, দার্শনিক, সমাজবিজ্ঞানী নেই, কোন বড় আবিষ্কার নেই।
সুফি ঐতিহ্য ,সংস্কৃতি ,চেতনা এবং সুফিভাবাদর্শের সরল সৌন্দর্যকে তরুণ প্রজন্মের কাছে পৌছে দেয়ার উদ্যোগই সুফি স্পিরিচুয়াল ফাউন্ডেশন ।

ইসলামের শান্তিপূর্ণ সমাজ সংস্কার, ধর্মীয় সংযম, নীতিনৈতিকতা, প্রেমের চাষাবাদ, সেবা শিক্ষা ও গবেষণা এবং পরস্পর সংলাপে বিশ্বাসী ফাউন্ডেশনের। ভিন্নমত সহিষ্ণুতার নীতি ও বৈচিত্র্যে সমতায় বিশ্বাস রাখে, সহমর্মিতাকে উৎসাহ দেয় এবং সকল ধর্মানুভূতির প্রতি শ্রদ্ধাশীল, কোন বিতর্কিত বিষয় বা মতবাদ প্রচার বা প্রকাশে কাজ করে না।
সেইসাথে গৌরবোজ্জ্বল ভাষা-আন্দোলন ও মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংবিধানের প্রতি ফাউন্ডেশন শ্রদ্ধাশীল।

সত্যের অনুসন্ধান, সৃষ্টির সেবা এবং জ্যোতির্ময় মহান সুফিসাধকদের দেখানো পথেই সুফি স্পিরিচুয়াল ফাউন্ডেশন যাত্রা শুরু করে ২০১৩ সালের ১৬ এপ্রিল। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে ফাউন্ডেশন মানুষকে নানামুখী সেবাদানের পাশাপাশি আত্মশুদ্ধি ও তরুণ প্রজন্মের চিন্তাশক্তিকে ইতিবাচক ধারায় বিকশিত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করে যাচ্ছে।

বিজ্ঞান, শিল্প, সাহিত্য-সংস্কৃতি, সঙ্গীত ইত্যাদি প্রতিটি ক্ষেত্রে সুফিসাধকদের অবদান অপরিসীম। বিশ্ব সাহিত্যের দিকপাল ও সুফিসাধক, শামস তাবরিজি, জালালুদ্দিন রুমি, খাজা মুঈনউদ্দীন হাসান চিশতি, শায়খ আবদুল কাদে জীলানী,শেখ সাদী, হাফিজ, ওমর খৈয়াম সহ অসংখ্য সুফিসাধকগণ সুফিতত্ত্বকে প্রকাশিত করেছেন অসাধারণ শব্দের যাদুতে।

স্থান-কালের সীমানা অতিক্রম করে তাঁরা সৃষ্টি করেছেন সাহিত্যের কালজয়ী ধারা। সসীম শব্দের মধ্যে তাঁরা সৃষ্টি করেছেন অসীম ছন্দ । আত্মার শুদ্ধতার সার্বক্ষণিক প্রয়াসের মাধ্যমে প্রকৃতির মর্মবাণী আহরণ করে, মহাপ্রাণ সুফিরা পৃথিবীতে ভালোবাসা ও সম্প্রীতির বাণী ছড়িয়ে দেন। স্রষ্টার ভালোবাসা ও সৃষ্টির সেবাই তাঁদের আদর্শ।
এই ধারাবাহিকতায় ফাউন্ডেশন আধ্যাত্মিক চিন্তাধারা ও গবেষণামূলক সাময়িকী ‘সুফিনামা’ প্রকাশ এবং সুফিভাবাদর্শকে নিয়ে উচ্চতর গবেষণা করার লক্ষ্যে ‘সুফি স্পিরিচুয়াল একাডেমি’ প্রতিষ্ঠা করে।

ফাউন্ডেশনের স্থায়ী প্রতিষ্ঠান করার জন্যে চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি উপজেলার হারুয়ালছড়ি ইউনিয়নে সুফিনগরে ২৪০ কাটা নিজস্ব জমিতে আলোকবর্তিকা কমপ্লেক্স ৯দকাজ শুরু করে ২০২১ সালে।

কানিজ ফাতেমা হিফজুল কোরআন মডেল মাদ্রাসা, তাজরিয়ান শিশু সদন (এতিমখানা),
বিররুল ওয়ালিদাইন বৃদ্ধাশ্রম সহ আন্তর্জাতিক মানের একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ উচ্চতর সুফি-গবেষণা প্রতিষ্ঠান ধীরে ধীরে গড়ে ওঠেবে।

যন্ত্রণাদগ্ধ মানুষের মনে প্রশান্তি আর প্রেমের বার্তা পৌঁছানো, আত্মবিশ্বাস জাগানো এটাই সবচেয়ে বড় সেবা। ফাউন্ডেশন এই বিশ্বাসের শক্তিতে উজ্জীবিত হয়েই আত্মিক, আধ্যাত্মিক ও মানবতার কল্যাণে দীর্ঘ এক দশক ধরে কাজ করে যাচ্ছে ।

“শুভ চেতনায় সমৃদ্ধ হোক তারুণ্য” এই স্লোগানকে সামনে রেখে, নৈতিক মূল্যবোধ, দেশপ্রেম ও সামাজিক দায়িত্ববোধ জাগ্রত করে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন জেলায়,স্কুল,কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে তরুণদের মানসিক স্বাস্থ্যসেবা এবং বিষয়ভিত্তিক সেমিনার ও কর্মশালার আয়োজন করে যাচ্ছে। এবং প্রতিষ্ঠা করেছে আলোকবর্তিকা পাঠাগার, সংগ্রহ করেছে ৭হাজারের অধিক বই।

শাশ্বত সত্য, সুন্দর, কল্যাণ ও মানবাধিকার হুমকির মুখে পড়েছে সারা দুনিয়ায়। ফলে জীবন ও জগৎ ক্রমাগত অসুস্থ ও অসুন্দর হয়ে পড়ছে। এই অবস্থায় ধর্ম, সাহিত্য- সংস্কৃতি চর্চাও বাজার অর্থনীতির মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে। তবুও জায়মান অন্ধকার থেকে মুক্তির পথ মানুষকেই খুঁজতে হবে, সুফি সাধকদের যাত্রা পথ হচ্ছে প্রেমের, যে পথের বাঁকে বাঁকে রয়েছে, রক্তিম অন্ধকারের আত্মায় স্মারক চিহ্নের মতো, কতো উজ্জ্বল আলোর ইতিহাস । ইসলাম শান্তি, সম্প্রীতি, সৌহার্দ্য, বিশ্বভ্রাতৃত্ব ও মানবতার ধর্ম। ইসলামের শান্তির বাণী মানুষের কাছে পৌছে দিতেই প্রতিষ্টা করেছে সুফি সেন্টার।
যান্ত্রিক সুবিধা দৈনন্দিন জীবনকে সহজ করে বটে, কিন্তু এসব জটিলতা থেকে অব্যাহতি মেলে না। বাহ্যিক আরাম-আয়েশে মানুষ স্বাচ্ছন্দ্যে বাঁচতে পারে না। প্রয়োজন জীবনের মৌলিকত্বে প্রবেশাধিকার! সুফি সাধকদের জীবনের ঐতিহাসিক মর্মকথাগুলোকে ধারণ করে, ব্যক্তি ও সমাজ বিনির্মাণে- সুফি মেডিটেশন কোর্স চালু করেছে।
সুফি ভাবাদর্শ উত্তেজনা সৃষ্টি নয়, অনুধাবনে বিশ্বাসী; কথায় নয়, কাজে বিশ্বাসী, ধ্বংসযজ্ঞে নয়, নির্মাণে বিশ্বাসী, কল্পনায় নয়, বাস্তবতায় বিশ্বাসী; ভোগবাদ ও প্রবৃত্তির অনুসরণে নয়, বরং ত্যাগ কুরবানি ও পরোপকারে বিশ্বাসী। সুফিভাবাদর্শের এই প্লাটফর্মে আগত সকল জীবনকে একান্তে একটা মঞ্চ দিতে চায় যেখানে কঠিন, তরল ও নির্মল জীবনানুভ

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট