1. info@www.dainikdeshbarta.com : bissho sangbad Online : bissho sangbad Online
  2. info@www.dainikdeshbarta.com : Dainik Desh Barta :
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সাংবাদিকতার যোগ্যতা নির্ধারণের দাবির সঙ্গে সরকার একমত: তথ্য প্রতিমন্ত্রী এলাকার উন্নয়নে প্রত্যেক সংসদ সদস্যরা পাবেন ২০ কোটি টাকা প্রতিবেশীদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে ‘সামুদ্রিক সম্পদ’ আহরণ করুন: প্রধানমন্ত্রী নাব্যতা সংকটে কর্ণফুলী নদীতে ফেরী চলাচলে চরম দুর্ভোগে চালক ও যাত্রীরা সবকিছুর আগে আমাদের সবাইকে নিজের মাতৃভাষার চর্চার ওপর গুরুত্ব দিতে হবে -এ কে এম মকছুদ আহমেদ হাজী আবদুল বাতেন সওদাগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা, সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা চন্দনাইশে মকবুলিয়া মাদরাসায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন এরাবিয়ান লিডারশীপ মাদ্রাসার বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন ন্যাশনাল ইংলিশ স্কুল চিটাগাং’র আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন

পেকুয়ায় ইমামের রাজকীয় বিদায়, আবেগাপ্লুত বিদায়ী ইমাম

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৫ জুলাই, ২০২৩
  • ২৮৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ইমাম অর্থ নেতা, ইমামকে ইকতাদা করে সবাই নামাজ আদায় করেন। এলাকার সর্বোচ্চ সম্মানিত ব্যক্তি হলো একজন ইমাম। কিন্তু আমাদের সমাজে দেখা যায় সবচেয়ে অবহেলিত হয়ে থাকে আমাদের মসজিদের ইমাম সাহেবরা। একজন ইমামকে কীভাবে সম্মান ও শ্রদ্ধা করতে হয় সেটি দেখিয়ে দিয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করলো পেকুয়ার পূর্ব মেহেরনামাবাসী। কক্সবাজারের পেকুয়া থানার পূর্ব মেহেরনামা কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের দীর্ঘ ৩৭ বছরের ধরে খতিব ও ইমাম হিসেবে ছিলেন মাওলানা ক্বারী মুহাম্মদ আইয়ুব। তিনি গত শুক্রবার জুমার নামাজ পড়িয়ে ইমামতি থেকে অবসরে যান। এলাকার জননন্দিত এ ইমামের বিদায়লগ্নে রাজকীয় সংবর্ধনা ও জমকালো বিদায়ের আয়োজন করেন এলাকাবাসী। এলাকাবাসীর এমন আয়োজন প্রশংসায় ভাসছে সবদিক থেকে। অনেকে মনে করেন, পূর্ব মেহেরনামাবাসীর এমন আয়োজন ইতিহাস ও অন্য এলাকাবাসীর জন্য অনুকরণীয় হয়ে থাকবে। এলাকাবাসীর এ আয়োজনে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন বিদায়ী ইমাম।তিনি এলাকাবাসীর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

বেলা ৩ টায় মসজিদ প্রাঙ্গনে এক জমকালো অনুষ্ঠানে হুজুরের হাতে দেড় লাখ টাকার চেক ও বিভিন্ন উপহার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। জাঁকজমকপূর্ণ বিদায় পর্বে এলাকার লোকজন কান্নায় ভেঙে পড়েন। এলাকার লোকজন প্রায় ৫০টি মোটর সাইকেল, ২০টি সিএনজি অটোরিকশা, নোহা মাইক্রো গাড়ি ও টমটম সব মিলে ৮০টি গাড়িতে করে শুভ যত্রা মধ্য দিয়ে হুজুরকে তাঁর বাড়িতে পৌঁছে দেন।হুজুরকে বহনকারী গাড়িটি ফুল দিয়ে রঙিন সাজে সাজিয়ে দেওয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট