1. info@www.dainikdeshbarta.com : bissho sangbad Online : bissho sangbad Online
  2. info@www.dainikdeshbarta.com : Dainik Desh Barta :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১১:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছেছে নির্বাচনী সরঞ্জাম, ভোটগ্রহন কাল দুবাইয়ে পুরস্কৃত হলেন ৫১ বাংলাদেশি সিআইপি প্রবীণ আ’লীগ নেতা মোহাম্মদ নুর আলমের ইন্তেকাল পটিয়ায় বিভিন্ন অভিযোগে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন এর সংবাদ সম্মেলন চাঁপাইনবাবগঞ্জে শুল্ক ফাঁকি দেয়া ১৫৬টি স্মার্ট মোবাইল ফোন জব্দ, আটক এক। প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল ১৮০ কিলোমিটারের মধ্যে। গার্মেন্টসে ঝুট ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সরকারদলীয় দুই পক্ষের সংঘর্ষ বোয়ালখালীতে জাতীয় ভিটামিন এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিত করণ সভা অনুষ্ঠিত মৎস্যসম্পদ সংরক্ষণে  জেলেদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আগেই বন্ধ করে দেওয়া হলো বঙ্গবন্ধু টানেল’

জাতীয় পার্টি চন্দনাইশ উপজেলা সম্মেলন ২০২৩ সম্পন্ন

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২৩
  • ২৮০ বার পড়া হয়েছে

জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী
চন্দনাইশ প্রতিনিধি:
চট্টগ্রাম (চন্দনাইশ) ১৩ অক্টোবর
জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম ১৪ সংসদীয় এলাকা থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী আ.জা.মো অলিউল্লাহ মাসুদ বলেছেন, জাতীয় পার্টির সাহায্য সহযোগিতায় বর্তমান সরকার তিন তিনবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় আছেন। জাতীয় পার্টি আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে এককভাবে প্রার্থী নির্ধারণ করে নির্বাচন করবেন। ইতিমধ্যে জাতীয় পার্টির নীতি নির্ধারণী ফোরাম প্রেসিডিয়াম ও সংসদ সদস্যদের যৌথ সভায় সর্বসম্মতভাবে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জনবন্ধু জিএম কাদের এমপিকে সর্বময় ক্ষমতা অর্পণ করেছেন পরিস্থিতির আলোকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার। আমরা জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয়ভাবে সারাদেশে ৩০০ আসনে নির্বাচন করার জন্য একাধিক প্রার্থী চেয়ারম্যানের কাছে তালিকা জমা হচ্ছে। অলিউল্লাহ মাসুদ আজ চন্দনাইশ উপজেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আমি চন্দনাইশ উপজেলার সন্তান। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি বিজয়ী না হয়েও আপনাদের সাথে ছিলাম এখনো আছি ভবিষ্যতেও থাকবো। আগামী নির্বাচনে দলের পক্ষ থেকে আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি নির্বাচন করবো। ইতিমধ্যে দলের পক্ষ থেকে আমাকে কাজ চালিয়ে যাওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। এই চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলায় রাস্তাঘাট ব্রীজ কালভার্ট, কর্ণফুলী সেতু, সার কারখানা, সমস্ত অবকাঠামো উন্নয়নে জাতীয় পার্টি সরকার তথা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের অবদান ছিল সবচেয়ে বেশি। জাতীয় পার্টি করা অবকাঠামোগুলো পরবর্তী সরকারগুলো ধারাবাহিকতা রক্ষা করছে মাত্র।
১৩ (শুক্রবার) অক্টোবর বিকেলে চন্দনাইশ উপজেলাধীন সিটি গার্ডেন কমিউনিটি সেন্টারে চন্দনাইশ উপজেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক সোনা মিয়া চৌধুরী’র সভাপতিত্বে সদস্য সচিব এ.কে.এম বাদশা মিয়ার সঞ্চালনায় সম্মেলনের উদ্বোধক ছিলেন দক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক নুরুচ্ছাফা সরকার। প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জাতীয় পার্টির সদস্য সচিব আবদুচ সাত্তার রনি। বিশেষ বক্তা ছিলেন জাতীয় পার্টি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নাছির উদ্দিন ছিদ্দিকী। বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিণ জেলা জাপার যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ মিয়া চৌধুরী, যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুর রব চৌধুরী টিপু, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সালেম, জাতীয় কৃষক পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর আহ্বায়ক এনামুল হক বেলাল, নাজিম উদ্দিন নাসু, চন্দনাইশ পৌর জাপার সদস্য সচিব জমির উদ্দিন, জাতীয় মহিলা পার্টি ইউপি সদস্য রাজিয়া সুলতানা। বক্তব্য রাখেন ডা. মোহাম্মদ আলী, বাদশা খালেদ সিকদার, আহমদ কবির, পুতুল বড়ুয়া, এমরান হোসেন মুন্না, মো. মোজাম্মেল, শাহেদুল ইসলাম, মো. কালু, মো. হাকিম, মো. জেবুল, আবদুর রহমান, আইয়ুব আলী, বাদল দাশ, মো. জয়নাল, মোহাম্মদ শাহেদ, মো. ভোলা মিয়া, মোহাম্মদ ইলিয়াছ প্রমুখ। সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে সর্বসম্মতিক্রমে সোনা মিয়া চৌধুরীকে সভাপতি, এ.কে.এম বাদশা মিয়াকে সাধারণ সম্পাদক করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট চন্দনাইশ উপজেলা জাতীয় পার্টির পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট