1. info@www.dainikdeshbarta.com : bissho sangbad Online : bissho sangbad Online
  2. info@www.dainikdeshbarta.com : Dainik Desh Barta :
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০২:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চন্দনাইশে পুরাতন কলেজ গেইট এলাকায় চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিন আহমেদের নির্বাচনী অফিস শুভ উদ্বোধন পটিয়া উপজেলার নির্বাচনে আ”লীগ দুটি ভাগে বিভক্ত দু”প্রতীকে ভোটের মাঠে মুখোমুখি! সংঘর্ষে আশংকায় ভোটাররা। চন্দনাইশে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাওলানা সোলাইমান ফারুকী’র গণসংযোগ নির্মাণের ২ মাস পর থেকেই বন্ধ চট্টগ্রামের একমাত্র এস্কেলেটর ফুটওভার ব্রিজটি বাংলাদেশ ইতিহাস চর্চা পরিষদ’র উদ্যোগে মোহাম্মদ ইমাদ উদ্দীনের সম্মাননা স্মারক লাভ মতবিনিময়ে সাংবাদিকদের সহযোগিতা চেয়েছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোহাম্মদ শফিউল আলম শিবগঞ্জে রাষ্ট্রীয় মর্যদায় দুই জন বীর মুক্তিযোদ্ধার দাফন সম্পন্ন। মেয়েকে হত্যার পর কাঁথা দিয়ে মরদেহ লুকিয়ে রাখেন সৎ মা পটিয়া সনাতনী সমাজের আয়োজনে চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রতীক দোয়াত কলম’র সমর্থনে মতবিনিময় সভা চন্দনাইশে বরকলে চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু আহমেদ চৌধুরী জুনু’র গনসংযোগ

চকরিয়ায় এক নারীকে মারধর ও ধর্ষণের অভিযোগ

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১৯৮ বার পড়া হয়েছে

চকরিয়া প্রতিনিধিঃ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পারিবারিক বিরোধের জের ধরে দ্বিতীয় স্বামীর যোগসাজসে এক মহিলাকে মারধর ও ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনার পর ওই নারীকে রাতের আঁধারে নির্জন এলাকায় ফেলে চলে যাওয়ার পর স্থানীয় লোকজন দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। এরপর পুলিশ তাকে উদ্ধারের পর হাসপাতালে প্রেরণ করে।

পুলিশ জানায়,সোমবার রাতে চকরিয়ার হারবাং-বরইতলীর সীমান্তে হারবাং ছড়া ব্রিজের উত্তর পাশে কাটাখালী এলাকা থেকে ওই নারীকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ সময় ওই নারী উঠে দাঁড়ানোসহ চলাফেরাও করতে পারছিলেন না।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে,নির্যাতিতা ওই নারীর বয়স আনুমানিক ৩০ বছর। হারবাং ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়ার্ডের কাটাখালী এলাকার জনৈক নাছির উদ্দিনের সঙ্গে দুইবছর আগে বিয়ে হয় ওই নারীর। তবে তাদের সংসারে কোন সন্তান নেই।

পুলিশ আরও জানায়- কাটাখালীর নাছির উদ্দিন ওই নারীর দ্বিতীয় স্বামী। এর আগে আরেকজনের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল ওই নারীর। সেই ঘরে ১২ বছরের এক পুত্র সন্তানও রয়েছে। বর্তমানে সে নানার বাড়িতে রয়েছে।

নির্যাতিতা ওই নারীর উদ্বৃতি দিয়ে চকরিয়ার হারবাং ফাঁড়ি পুলিশের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর জানান, সোমবার রাত আটটার দিকে পুলিশ গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করে। এ সময় ওই নারী শারিরিকভাবে এতই দুর্বল ছিল যে উঠেও দাঁড়াতে পারছিলেন না।

এই অবস্থায় নারী পুলিশের সহায়তায় তাকে উদ্ধারের পর হাসপাতালে নেওয়া হয়। চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাকে সদর হাসপাতালের ওসিসিতে (ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার) প্রেরণ করা হয়।

তিনি আরও জানান,এই ঘটনাটি পুলিশ পর্যন্ত পৌঁছে যাওয়ার পর ঘটনায় জড়িত দ্বিতীয় স্বামী এবং একাধিক ধর্ষক এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। তবে তাদের শনাক্তপূর্বক আটক করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

এ ব্যাপারে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, ‘স্বামী কর্তৃক সংঘটিত ও তার লেলিয়ে দেওয়া একাধিক ব্যক্তি দ্বারা ওই নারীকে ধর্ষণের ঘটনার অভিযোগ ব্যাপকভাবে খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

এই ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। অবশ্যই লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তিসাপেক্ষে থানায় মামলা রুজুসহ জড়িতদের গ্রেপ্তার করা হবে। ইতোমধ্যে তাদের ধরতে পুলিশ কাজ করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট