1. info@www.dainikdeshbarta.com : bissho sangbad Online : bissho sangbad Online
  2. info@www.dainikdeshbarta.com : Dainik Desh Barta :
মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
প্রবীণ আ’লীগ নেতা মোহাম্মদ নুর আলমের ইন্তেকাল পটিয়ায় বিভিন্ন অভিযোগে আনারস প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন এর সংবাদ সম্মেলন চাঁপাইনবাবগঞ্জে শুল্ক ফাঁকি দেয়া ১৫৬টি স্মার্ট মোবাইল ফোন জব্দ, আটক এক। প্রবল ঘূর্ণিঝড় রেমাল ১৮০ কিলোমিটারের মধ্যে। গার্মেন্টসে ঝুট ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সরকারদলীয় দুই পক্ষের সংঘর্ষ বোয়ালখালীতে জাতীয় ভিটামিন এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন অবহিত করণ সভা অনুষ্ঠিত মৎস্যসম্পদ সংরক্ষণে  জেলেদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে আগেই বন্ধ করে দেওয়া হলো বঙ্গবন্ধু টানেল’ চন্দনাইশ উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গ্রেফতারের নির্দেশ চন্দনাইশে ধোপাছড়িতে বৈদ্যুতিক বাল্ব প্রতীকের গনসংযোগ

আদালত জামিন না দেওয়ায় হঠাৎ শহরে অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ, দূর্ভোগে রাঙ্গামাটি শহরের মানুষ

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৯ জুলাই, ২০২৩
  • ১৬৭ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে মারধরের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় আদালত সিএনজি অটোরিক্সার লাইনম্যানের জামিন না মঞ্জুর করার প্রতিবাদে রাঙ্গামাটি শহরে চলাচলের একমাত্র বাহন সিএনজি অটোরিক্সা চলাচলা আকষ্মিক ভাবে বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে শ্রমিক ইউনিয়ন।

বুধবার (১৯ জুলাই) দুপুরে আদালত আসামির জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিলে অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ করে দেয় চালকরা। এদিকে, পার্বত্য শহর রাঙ্গামাটির একমাত্র অভ্যন্তরীণ যানবাহন সিএনজি অটোরিক্সা চলাচল হঠাৎ বন্ধ হয়ে পড়ায় বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।
বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে প্রথমে রাঙ্গামাটি আদালত প্রাঙ্গনের সামনের সড়কে সিএনজি অটোরিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয় চালকরা। বেলা ৩টার দিকে শহরের প্রাণকেন্দ্র বনরূপায় দেখা গেছে, চালকা সিএনজি অটোরিক্সা থেকে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিচ্ছে। হঠাৎ করে অটোরিক্সা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তপ্ত দুপুরে দুর্ভোগে পড়েছেন সড়কে চলাচলকারী যাত্রীরা। এসময় অনেককেই পায়ে হেঁটে যেতে হয়েছে বাসায় কিংবা গন্তব্যে।
সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের বলছে, তারা অনির্দিষ্টকালের জন্য গাড়ি (অটোরিক্সা) চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকবে। পড়ে ৩ ঘন্টা শহরে যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকার পর রাঙ্গামাটি পুলিশ সুপারের আশ্বাসে ধর্মঘট তুলে নেয় রাঙ্গামাটি সিএনজি অটোরিক্সা চালক কল্যাণ সমিতি। এতে করে আবারো স্বাভাবিক হয় শহরে যান চলাচল।
এসময় সড়কে অটোরিক্সায় চলাচলরত বেশ কয়েকজন যাত্রীরা জানান, পূর্বের কোন ঘোষণা ছাড়াই শহরে একমাত্র পরিবহণ অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে চালকরা। আমরা ভেদভেদী থেকে বনরুপায় যাবো। কিন্তু মাঝ পথে আমাদের নানিয়ে দিলো। এখন পায়ে হেটে বনরুপায় যেতে হবে। আবার পায়ে হেটে বাসায় যেতে হবে। এটা তাদের কি ধরনের নিয়ম নীতি বুঝলাম না। আমাদের মতো অনেক যাত্রী দূর্ভোগে পড়েছে। বিশেষ করে মহিলারা দূর্ভোগে পড়েছে।
আরও বেশ কয়েকজন সিএনজি অটোরিক্সার যাত্রী আক্ষেপ করে বলেন, শহরের সড়ককে তারা কিনে নিয়েছে মনে হচ্ছে। যখন যা ইচ্ছা তা অটোরিক্সা চালকরা করছে। সড়কে চলতে চলতে তারা যাত্রীদের নামিয়ে দিচ্ছে কোন ঘোষণা ছাড়াই। এই ভাবে কখনো চলতে পারে না এই ব্যাপারে প্রশাসনের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া দরকার।
এদিকে, এ ঘটনার পরপরই শহরের প্রাণকেন্দ্র বনরূপা মোড়ে উপস্থিত হন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহনেওয়াজ রাজু, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদুল ইসলাম, কোতোয়ালি থানার ওসি আরিফুল আমিন ও ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক সারোয়ার মোহাম্মদ পারভেজ।
কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরিফুল আমিন বলেন, অটোরিকশা চালককে আটক ও জেল হাজতে প্রেরণের প্রতিবাদে রাঙ্গামাটি শহরে অটোরিক্সা চালকরা গাড়ি চলাচল বন্ধ রেখেছে। এ ঘটনা নিয়ে যাতে অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে জন্য পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
হঠাৎ করে সিএনজি অটোরিক্সা বন্ধ করে দেওয়া প্রসঙ্গে রাঙ্গামাটি জেলা সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু বলেন, রাঙ্গামাটি আদালতের পেশকারের ভাই সোহেল রানার সাথে নয়নের সাথে মঙ্গলবার কথা কাটাকাটি হয়। এতে সোহেল রানা ওইদিনই আদালতে মামলা করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। আমাদের লাইনম্যানকে মারধর করার পরও মামলা হয়েছে, গ্রেফতার হয়েছে। তবুও আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধা জামিন আবেদন জানিয়েছে। কিন্তু জামিন না মঞ্জুর হওয়ায় আমরা এর প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের জন্য শহরে সিএনজি অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা কার্যকরী কমিটি বৈঠকে বসতেছি। বৈঠক শেষে আমরা আপনাদেরকে সিদ্ধান্ত জানাব।
মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত ১৬ জুলাই দুপুরে শহরের কালিন্দীপুর রাস্তার মুখের সামনে রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবিপ্রবি) ছাত্র সোহেল রানার সঙ্গে সিএনজি চালক (প্রথম আসামি) মোস্তফার বাকবিতণ্ডা ঘটে। ঘটনার এক পর্যায়ে প্রথম আসামি মোস্তফা ও দ্বিতীয় আসামি রিয়াজ মামলার বাদী সোহেল রানা ও সাক্ষী তাহেরুলকে অটোরিক্সা থেকে টেনে হিঁচড়ে নামিয়ে কিল ঘুষি মারে। ঘটনার সময় তৃতীয় আসামি নয়ন (লাইনম্যান) সোহেল রানার পকেটে থাকা মানিব্যাগটি ছিনিয়ে নেয়।
এই মামলায় পুলিশ আসামিকে গ্রেফতার আদালতে নিলে আদালত আসামি নয়নের জামিন আবেদর না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। এতে হঠাৎ করে কোন ঘোষণা ছাড়াই শহরে একমাত্র পরিবহন সিএনজি অটোরিক্সা বন্ধ করে দেয় চালকরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট